Monday, October 19, 2020
বাড়ি জীবনের গল্প খেয়া নৌকা পার করেই চলে আবেদার সংসার

খেয়া নৌকা পার করেই চলে আবেদার সংসার

‘অল্প বয়সে দরিদ্র পরিবারে বিয়ে হয়, স্বামী খেয়া নৌকা চালাত, তার অসুখ-বিসুখ হলে বাধ্য হয়ে আমিই নৌকা চালাতে যেতাম, এভাবেই নিয়মিত নৌকা চালানো শুরু করি। এরপর স্বামীকে অন্য কাজ করতে বলি। দুজনের আয়ে মোটামুটি চলতে থাকে সংসার’

অসুস্থ স্বামীর চিকিৎসা ও সংসার চালাতে দীর্ঘ ২০ বছর ধরে খেয়া নৌকা চালাচ্ছেন আবেদা বেগম (৫৫)। সংসারের প্রয়োজনে একজন নারী কতটা সংগ্রামী হতে পারেন তার এক জীবন্ত উদাহরণ তিনি। শুরুর দিকে বাঁকা কথা শুনতে হলেও তাতে কর্ণপাত করেননি তিনি। স্থানীয় পিয়ার আলীর মোড় সংলগ্ন মরা পদ্মার ক্যানালে নৌকা চালিয়ে ক্রমেই তিনি হয়ে উঠেছেন এলাকার এক পরিচিত ও প্রিয় মুখ।

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের উত্তর কাওয়ালজানি গ্রামে আবেদা বেগমের বসবাস। স্বামী আনছার শেখ (৬৩) ও ৫ মেয়ে ১ ছেলে নিয়ে তার সংসার।

আবেদা বেগম বলেন, “খুব অল্প বয়সে একটি দরিদ্র পরিবারে আমার বিয়ে হয়। স্বামী খেয়া নৌকা চালাত। তার সামান্য আয় দিয়ে সংসার চলতো না। তারপর মাঝে মধ্যে অসুখ-বিসুখে নৌকা চালাতে পারত না। লোকজন ডাকাডাকি করতে বাড়িতে চলে আসতো। বাধ্য হয়ে মাঝে মধ্যে লাজলজ্জা ফেলে আমিই নৌকা চালাতে চলে যেতাম। এভাবেই নিয়মিত নৌকা চালানো শুরু করি। স্বামীকে অন্য কাজ করতে বলি। দুজনের আয়ে মোটামুটি চলতে থাকে সংসার। এ অবস্থায় একে একে ৫টি মেয়ে ও সর্বশেষ ১টি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়।”

তিনি বলেন, “৪টি মেয়েকে বিয়ে দিয়েছি। ছোট মেয়েটিকে খুব কষ্ট করে পড়ালেখা করাচ্ছি। এবার সে এইচএসসি পরীক্ষার্থী। ছেলেটা ক্লাস ফোরে পড়ে।”

আবেদা বেগম আরও বলেন, “২ বছর হলো স্বামী অসুস্থ হয়ে ঘরে পড়ে আছে। কোনও কাজ করতে পারে না। আমারও আগের মতো শরীর চলে না। দিনে দেড়শ’, দুইশো টাকার বেশি আয় করতে পারি না। নৌকাটাও ভেঙে গেছে। টাকার অভাবে মেরামত করতে পারছি না।” নদী ভাঙনের মুখে থাকায় অন্যের বাড়িতে কোনোরকমে আশ্রয় নিয়ে আছেন। কিন্তু কেউ খোঁজ নেয় না। সামনের দিনগুলো হয়তো আরও কষ্টের হবে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে দেবগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম বলেন, “তাদের স্বামী-স্ত্রীর বয়স পূর্ণ না হওয়ায় ভাতার আওতায় আনা যাচ্ছে না। তবে বিভিন্ন জরুরি মুহূর্তে তাদের সরকারি ১০ কেজি করে চাল দিয়ে সহায়তা করা হয়েছে। আগামীতে তাদেরকে মাসিক ভিজিডির খাদ্য সহায়তার আওতায় প্রক্রিয়া চলছে।”

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

৬টি দাবি সহ ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম পুলিশকে

সিলেটে নগরের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ‘পুলিশের নির্যাতনে’ মারা যাওয়া রায়হান আহমদ হত্যায় জড়িতদের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার না করা হলে হরতাল-সড়ক অবরোধসহ বৃহত্তর...

বিশ্বনাথে সাক্ষ্য দেয়ায় শিশুর দুটি চোখ নষ্ট করে, ঘাড় ভেঙে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় গরুর পা কাটার সাক্ষ্য দেয়ায় মাদরাসাছাত্র রবিউল ইসলামের দুটি চোখ নষ্ট করে, ঘাড় ভেঙে ও শরীরের একাধিক স্থানে সিগারেটের...

ব্রাজিলে দুর্বৃত্তের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

ব্রাজিলে দুর্বৃত্তের গুলিতে মৌলভীবাজারের বড়লেখার এক যুবক নিহত হয়েছেন। তার নাম ‍মুত্তাকিন আহমদ রায়হান (২৫)। শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) রাতে ব্রাজিলের সাওপাওলো শহরে...

বিশ্বে ২৪ ঘণ্টায় করোনাক্রান্ত ৩ লাখ ৭২ হাজারের বেশি

প্রাণঘাতী মহামারি করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ লাখ ৭২ হাজার ১২০ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। আজ রোববার (১৮ অক্টোবর) সকাল পর্যন্ত...

শীর্ষ খবর

বাংলাদেশের করোনা ভ্যাকসিন তালিকাভুক্ত করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

বাংলাদেশের গ্লোব বায়োটেকের করোনা ভ্যাকসিন ব্যানকোভিড'কে তালিকাভুক্ত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। শনিবার (১৭ অক্টোবর) সংস্থাটি তাদের ওয়েবসাইটে...

খুলছে স্বপ্নের দুয়ার, সহজ হচ্ছে ব্রিটেনের ওয়ার্ক পারমিট

ব্রিটেনে ওয়ার্ক পারমিটে বাংলাদেশ তথা বাইরের দেশ থেকে লোক আনার ক্ষেত্রে নতুন নানা সুবিধা আসছে। ব্রেক্সিট পরবর্তী সময়ের জন্য সমান পলিসির অংশ...

৬টি দাবি সহ ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম পুলিশকে

সিলেটে নগরের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ‘পুলিশের নির্যাতনে’ মারা যাওয়া রায়হান আহমদ হত্যায় জড়িতদের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার না করা হলে হরতাল-সড়ক অবরোধসহ বৃহত্তর...

নুরুলের সংগঠনে ভাঙন

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হকের বিরুদ্ধে ‘মানুষের আবেগ নিয়ে নোংরা রাজনীতির’ অভিযোগ তুলে ‘ছাত্র অধিকার পরিষদ’ ভেঙে আলাদা কমিটি করেছে একটি অংশ।